Topic: নতুন এলে তো পরিচয় দিতে হয়।

ওহে বাঙালী ভাই,

কেমন আছো? আশা করি ভালই আছো। পর সংবাদ এই যে আমি বাংলা ব্লগ আর ফোরাম সাইটগুলোতে ঘুরতে ঘুরতে তোমাদের কাছে চলে এসেছি। আশা করি আমাদের সময় টা ভালই কাটবে। নতুন এলে তো পরিচয় দিতে হয়।

আমি এফ রহমান, পিতার নাম এস এম রহমান, মায়ের নাম আ. বেগম। আমার জন্ম দক্ষিণ বাংলায়। সুন্দরবনের কোল ঘেঁষা প্রত্যন্ত এক পল্লী গাঁয়ে। যদিও এখানে জীবন যাত্রার মান খুব উন্নত নয়। আমার গ্রাম, আমার অহংকার। আমি এই গ্রামে জন্মে গর্ব বোধ করি। আমরা সবাই চাই উন্নয়নের জোয়ার আসুক, অন্য কেউ এসে রাতারাতি বদলে দিক সব কিছু। কিন্তু জীবন তো আর রূপকথার গল্প নয়। নিজেদের ভাগ্যের পরিবর্তন নিজেদের কে করতে হবে। আমাদের সবার উচিত যার যার অবস্থানে থেকে যেভাবে সম্ভব যতটুকু সম্ভব এগিয়ে আসা। আমরা বাঙালীরা ডায়ালগ মারি বেশী কাজ করি কম। এই আমার কথাই ধরেন না, আমি এগিয়ে আসার আহবান জানাচ্ছি আজ অনেক দিন ধরে। কিন্তু নিজেই এগোই না। খোলস ছেড়ে বেরোতেই হবে।

আমার গ্রামের নাম ভাগবাহ। খুলনা জেলার কয়রা থানার ৩ নং মহেশ্বরীপুর ইউনিয়নে অবস্থিত এটা। আমরা দুই ভাই। ছোট ভাই বিবিএ পড়ছে একটি সরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ে। আমার বাবা সরকারী চাকরী করেন। চাকরী সুত্রে বাবার সাথে আমরা শৈশব থেকেই গ্রামের বাইরে কাটিয়েছি। খুলনা জেলার দাকোপ থানায় কেটেছে আমার শৈশব কৈশোর।

এসএসসির পর খুলনা শহরে আসি কলেজে ভর্তি হতে। ২০০২ সালের কথা। সেই যে বের হলাম। আর সেভাবে ফেরা হল না বাড়ী। ছুটি পেলেই এখনো বাড়ী যাওয়ার জন্য মন আকুলি বিকুলি করে। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া। ভর্তি হলাম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে। ফলিত রসায়ন ও রাসায়নিক প্রযুক্তি বিভাগে।  ৫ বছর কেটে গেল। বলতে হবে জীবনের একটি সোনালী অধ্যায় পার করে এলাম।

মাস্টার্স পরীক্ষা শেষ। অতঃপর গাটকি বোচকা বেঁধে একাকী এসে নামলাম ঢাকা শহরে। লোকে লোকারণ্য ঢাকা শহরে আমি খুব একা। এই সময় কলেজের বন্ধু রাসেলের কাছে যে সাপোর্ট পেয়েছি তা বলে বোঝাতে পারব না। তিনমাস পার হয়ে গেল। চাকরী পেলাম না। কি অসহ্য সময় তা যে পার করেছো সেই বুঝবে। কোথাও পথ খুঁজে পেতাম না। বিডি জবস এ আবেদন করতাম সব চাকরীতে।

একদিন হঠাৎ করেই চাকরী হয়ে গেল। সাভারে। মাল্টি ন্যাশ্নাল কোম্পানি। ১২ ঘন্টা ডিউটি করতে হত। রক্ত পানি হয়ে যেতে লাগল। বিসিএসের জন্য পড়াশুনা দরকার। কিচ্ছু হচ্ছিল না। মাস না পেরোতেই দেশীয় একটা কোম্পানীতে চাকরী পেলাম। চলে এলাম মুন্সীগঞ্জ। বেশ নিরিবিলি আছি এখন। কিন্তু এখানে ভবিষ্যৎ অন্ধকার। তাই মনে প্রাণে চেষ্টা করতে হবে বিসিএসে চান্স পাওয়ার। অথবা অন্য কোথাও শিফট করার।

আমি প্রথম ব্লগ লেখা শুরু করি ২০১০ সালে সামহোয়্যারইন ব্লগে। এরপর সব গুলো সাইটেই নিবন্ধন করি। কিন্তু এখন নিয়মিত আছি সামহোয়ারইনব্লগ এবং সোনার বাংলাদেশ ব্লগে। জীবন হল ঝামেলাপূর্ণ একটা জিনিস। আমি মোটামুটি জীবনকে উপভোগ করার চেষ্টা করি।

নিজের সম্পর্কে বলতে গিয়ে পুরো লাইফ হিস্ট্রি বলে ফেললাম দেখছি। ওহো মায়ের কথা বলা হয় নি। আমার মা শুধুই মা। তার জীবনে রান্না বান্না আর আমরা দুটি ভাই ছাড়া আর কিছু আছে বলে মনে হয় না। ছেলেরা বাড়ী ফিরলে কি কি খাওয়াবেন এই তার সারাক্ষণের চিন্তা বলে আমার মনে হয়। গতবারের কথা বলি, ২ দিনের ছুটিতে বাড়ী গেছি। ফেরার দিন দেখি আম্মা ৭ আইটেমের তরকারী দিয়েছেন খেতে। কোনমতে খেলাম। বাস চলছে। আম্মা ফোন দিলেন। পিঠা বানিয়েছেন। কিন্তু দিতে ভূলে গেছেন। এখন কি করবেন। বাস থামিয়ে যদি ফিরে যাওয়ার সুযোগ থাকতো তবে আমি তাই যেতাম মা। কিন্তু একবার ফিরলে যে বারবার ফিরতে মন চাইবে। তাই আর ফিরি না।

আর আমার গ্রামের আত্মীয়দের ভালবাসার গল্প না হয় আরেক দিন শোনাবো। ভাল থেকো বন্ধুরা।
শূন্যে বাঁধি আশা।



Re: নতুন এলে তো পরিচয় দিতে হয়।

এফ রহমান wrote:

এফ রহমান

আপনাকে ফোরামে স্বাগতম। কিন্তু আপনার এফ এর পুরো অর্থ কিন্তু জানা হলো না। আপনার বাসা খুলনা তে, আমিও আপনার পাশে থেকেই, যশোর।



Re: নতুন এলে তো পরিচয় দিতে হয়।

সুস্বাগতম আপনাকে...



Re: নতুন এলে তো পরিচয় দিতে হয়।

দারুন শুরু।ফোরামে স্বাগতম।এসবি তে আপনার নিক কি নামে?আমারটা দুরন্ত ঈগল।

মোঃ সাঈদুজ্জামান উপল
http://img684.imageshack.us/img684/3410/fb1d.jpg