Topic: আনন্দবাজার পত্রিকায় সাকিব আল হাসানের একান্ত সাক্ষাতকার!!!

http://media.somewhereinblog.net/images/bdcairo_1303165921_2-131770.jpg

দুই ম্যাচে চার উইকেট। ইকনমি রেট ৬.৫। ক্ষিপ্র ফিল্ডিং। প্রতিবেশী দেশের বাঙালি অধিনায়ক। কলকাতা নাইট রাইডার্সে যোগ দিয়েই 'হিট' সাকিব-আল হাসান। বাইপাসের ধারে টিম হোটেলে বসে বাঁ হাতি অলরাউন্ডার সোমবার একান্ত সাক্ষাৎকার দিলেন আনন্দবাজার-কে।

প্রশ্নঃ- নাইট রাইডার্সের জার্সি গায়ে ইডেনে নামার অনুভুতি কেমন?

সাকিবঃ মনে হচ্ছে যেন নিজের দেশে ঘরের মাঠে খেলছি। কলকাতা আর আমাদের ভাষা এক রকম। অনেক মিল। মানিয়ে নিতে খুব সুবিধে হচ্ছে।

প্রশ্নঃ এত কাছের মাঠ ইডেন। অথচ কালই আপনি এখানে প্রথম নামলেন!
সাকিবঃ খুব উত্তেজিত ছিলাম। এত দর্শকের সামনে কখনও খেলিনি। আমার ধারণা পন্চাশ-ষাট জাহার মতো দর্শক ছিল। খুবই উপভোগ করেছি। বাংললাদেশের মাঠগুলোর সাথে তুলনা করতে বললে আমি বলব, মীরপুরের কথা। মীরপুর আমার কাছে খুবই স্পেশাল মাঠ। হয়তো ইডেনের মতো এত দর্শক সেখানে হয় না। কিন্তু যত দর=শকই হোক, ওরা পুরো মাঠ চাংগা করে রাখে।

প্রশ্নঃ একটু কি টেনশন হচ্ছিল এত লোকের সামনে খেলতে নামছি?

সাকিবঃ না, একবার মাঠে ঢুকে পড়লে কখনোই আমার টেনশ হয় না। তবে খুব উত্তেজিত ছিলাম। আমি নিজেকে বলেছিলাম, নিজে যা যা করবে ভেবেছ সেগুলো করার চেষ্টা করো। নিজের প্লানিংটা ঠিক মতো কাজে লাগাতে পারলে বাকি জিনিসগুলো ঠিক হয়ে যায়।

প্রশ্নঃ প্রথম দর্শনে ইডেন কেমন লাগল?

সাকিবঃ যে ভাবে সারাক্ষন দর্শকেরা সমর্থন করে গিয়েছেন, অভাবনীয়! ইডেনের প্রত্যেক দর্শককে আমি ধন্যবাদ জানাব। আর আবেদন রাখব, আমাদের সব ম্যাচে মাঠ ভরিয়ে তুলুন। আমাদের ভাল খেলার পিছনে আপনাদের এই সমর্থন বিরাট প্রেরণা হয়ে দাঁড়াবে।

http://media.somewhereinblog.net/images/thumbs/bdcairo_1303165029_1-spo_pg_collage.jpg

প্রশ্নঃ দাদা নেই। বাংলা থেকে নিয়মিত খেলছেন শুধু মনোজ তিওয়ারি। আর বাংলাদেশের প্রতিনিধি হিসেবে আপনি। বাংলার ক্রিকেটভক্তদের কী বলবেন?
সাকিবঃ বাংলার ক্রিকেটভক্তদের বলব, যে সমর্থনটা রবিবার ইডেনে দেখিয়েছেন সেটা দেখিয়ে যান। কথা দিচ্ছি, আমরাও ভাল কিছু ফেরত দেব।

প্রশ্নঃ শাহরুখ খান-কে টিমের মালিক হিসেবে পাওয়া? সেটা কেমন অভিজ্ঞতা?
সাকিবঃ বাংলাদেশে বেশির ভাগ মানুষ যে শারুখ খানের ফ্যান তাতে কোনও সন্দেহ নেই। আমার পরিবার, বন্ধু বান্ধব সবাই খুব উৎফুল্ল যে, ওর টিমে আমি খেলছি।

প্রঃ কাল জেতার পর শাহরুখ কি বললেন?
সাকিবঃ উনি তো সারাক্ষনই উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছেন। কাল আমাকে আলাদা করে বলেছেন, পরের ম্যাচে হ্যাটট্রিকটা হয়ে যাবে, চিন্টা নেই।

প্রঃ কলকাতা তো এত কাছে। দেশ থেকে কাউ আসছে না ইডেনে আপনার খেলা দেখতে?
সাকিবঃ কালকের ম্যাচটাতে আসে নি। কিন্তু যা শুনেছি, অনেকেই আসছে পরের ম্যাচগুলো দেখতে।


প্রশ্নঃ পরিবারে শাহরুখ খানের সবথেকে বড় ফ্যান কে?
সাকিবঃ আমার ছোট বোন। সবথেকে বেশি শাহরুখের ছবি দেখে।

প্রঃ আপনি দেখেন শাহরুখের ছবি। সবথেকে ফেভারিট কোনটা?

সাকিবঃ কুছ কুছ হোতা হ্যায়।

প্রঃ বিশ্বকাপে দেশের ক্রিকেট সমর্থকদের প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারার আক্সেপ এখনো কি খোচা দিচ্ছে?
সাকিবঃ অতৃপ্তি তো একটা আছেই। আমরা যেটা বিশ্বাস করতাম অতদূর আমরা যেতে পারিনি। তবু মনকে বুঝিয়েছি যে, জীবন ওখানেই থেমে থাকতে পারে না। সামনে অনেক নতুন চ্যালেন্জ আছে। বিশ্বকাপ থেকে শিক্ষা নিয়ে জীবনের পথে সামনে এগিয়ে চলো।

প্রঃ কেকেআর ড্রেসিংরুমের কোন ব্যাপারটা সবথেকে ভাল লাগছে?
সাকিবঃ সবাই সবার সাফল্য প্রার্থনা করছে। একে অন্যের সাফল্যে আনন্দ করছে। আমার মনে হয় কেকেআর যে পর-পর জিতে চলছে, তার পিছনে এটাই প্রধান কারণ।

http://anandabazar-unicode.appspot.com/ … khela1.htm

মেডিকেল বই এর সমস্ত সংগ্রহ - এখানে দেখুন
Medical Guideline Books